মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১১:৫২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
Logo দি,জে.এ কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে পবিত্র ঈদুল আযহা’র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন -জয়নাল আবেদীন Logo বাঁশখালী ছনুয়া ইউনিয়নে তিন’শ পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তা Logo পবিত্র ঈদুল আজহা’র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন-শাহাজাদা নুরুল আবছার চিশতি Logo ক্যান্সার রোগীকে আর্থিক অনুদান দিল প্রবাসী মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন Logo বাঁশখালী ছনুয়া ইউনিয়নে ১৭৮১ পরিবারের মাঝে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ Logo ২৩ জুলাই থেকে কঠোর লকডাউন, বন্ধ থাকবে গার্মেন্টসহ সকল শিল্পপ্রতিষ্ঠান Logo যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাঁশখালী প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত: Logo নেইমারকে শান্তনা দিয়ে যা বলেলেন মেসি Logo ৫৩ বছর পর চ্যাম্পিয়ন ইতালি Logo পবিত্র ঈদুল আজহার গুরত্ব ও তাৎপর্য-আহমেদ কবির

নেইমারকে শান্তনা দিয়ে যা বলেলেন মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক / ৪০ বার পঠিত
সময় : সোমবার, ১২ জুলাই, ২০২১, ১০:২৩ পূর্বাহ্ণ

খেলা শেষে মেসি যখন ট্রফি হাতে নেয়ার অপেক্ষায় উল্লাসে ব্যস্ত। তখন অঝোরে কাঁদছেন নেইমার। কোপা আমেরিকার ট্রফি জিততে না পারার কান্না। ২৮ বছরের অপেক্ষা ঘুচিয়ে এই ট্রফিটা হয়তো বিধাতা তার নামেই লিখে রেখেছিলেন।

কিন্তু প্রতিপক্ষ একজনকে তো হারতেই হবে। আর সেটাই মেনে নিতে হয়েছে ব্রাজিলের নেইমারকে। হলো না আন্তর্জাতিক ট্রফি জেতা। হতাশার গল্প দিয়েই শেষ হলো আসর। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে তাকে পড়তে হয়েছিল ভয়ংকর ইনজুরিতে। এরপর চলে যান মাঠের বাইরে। এরপর খেলা হয়নি দীর্ঘদিন।

২০১৯ সালে ব্রাজিলের কোপা জয়ের সময় ছিলেন না দলে। তবে সুযোগ ছিল চলতি আসরে। হয়তো লিখতে পারতেন একটা সফলতার গল্প। কিন্তু হলো না। তাই ম্যাচ শেষে কান্নাই সঙ্গী হলো নেইমারের।

প্রতিপক্ষের বন্ধুকে কান্নারত অবস্থায় দেখে সান্ত্বনা দিতে এগিয়ে এলেন মেসি। জড়িয়ে ধরলেন। না পাওয়ার আক্ষেপের কষ্ট তো মেসিরও দীর্ঘদিনের। হয়তো বুকে জড়িয়ে সেটাই মনে করাতে চাইলেন। হয়তো কানে কানে বললেন, এটাই শেষ নয় সুযোগ আসবে আবার।

রোববার ঐতিহাসিক মারাকানায় ব্রাজিলকে ১-০ গোলে হারিয়ে আর্জেন্টিনা শিরোপার উল্লাস করে। ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেওয়া গোলটি করেন ডি মারিয়া। ২০০৪ সালে সিজার দেলগাদোর পর প্রথম আর্জেন্টাইন ফুটবলার হিসেবে কোপার ফাইনালে গোল করলেন ডি মারিয়া।

মারাকানায় ম্যাচটিতে বল দখলে এগিয়ে ছিল ব্রাজিল। প্রথমার্ধের ৬০ ভাগ সময় বল দখলে রেখেছেন নেইমাররা। আক্রমণেও এগিয়ে ছিল স্বাগতিকরা। পুরো ম্যাচে ১৩টি শট নিয়েছে ব্রাজিল, যার মধ্যে দুটি ছিল অনটার্গেটে যাওয়ার মতো। অন্যদিকে আর্জেন্টিনার পাঁচ শটের মধ্যে লক্ষ্যে যাওয়ার মতো ছিল দুটি। তার মধ্যেই সফল লিওনেল স্কালোনির দল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD